ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল হক (মঞ্জু) আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নির্বাচন পর্যবেক্ষণ সমন্বয় উপ-কমিটির সদস্য নির্বাচিত

আসনভিত্তিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটি করবে আ.লীগ। 

ডেস্ক রিপোর্ট।।

ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল হক (মঞ্জু) আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নির্বাচন পর্যবেক্ষণ সমন্বয় উপ-কমিটির সদস্য নির্বাচিত এবং তিনি বরিশাল-৬ (বাকেরগঞ্জ) আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়নে জনমত জরীপে সকলকে ছাপিয়ে এগিয়ে  আছেন।

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ‘‘জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটি” গঠন করেছে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা এমপি চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হোসেন তওফিক ইমাম কো-চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি সদস্য সচিব মনোনীত হয়েছেন।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যরা হলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ।

আসনভিত্তিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটি করবে আওয়ামী লীগ। এই কমিটিতে সংশ্লিষ্ট জেলা, উপজেলা কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকরা থাকবেন। কমিটির এই সদস্যরা কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী প্রার্থীর পক্ষে জয় নিশ্চিতে কাজ করবেন। শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির এক সভায় প্রাথমিকভাবে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার গণভবনের বাসভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ কমিটির কো-চেয়ারম্যান দলটির উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এইচ টি ইমাম।

সভায় উপদেষ্টা পরিষদ সদস্যদের চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যদের সদস্য সচিব করে কয়েকটি কোর কমিটি গঠনের প্রস্তাব করা হয়। তারা নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সকল সেক্টরের কর্মকর্তা ও দলের তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে কাজ করবেন।

বৈঠকে উপস্থিত একাধিক নেতা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সূত্রগুলো জানায়, সভায় শেখ হাসিনা বলেছেন, মনোনয়নের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় নেতারা অগ্রাধিকার পাবেন। ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা কোনও নেতা মনোনয়ন পাবেন না।

সভায় জরিপের ফলাফলের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা নেতাদের বলেছেন, সারা দেশে আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা বর্তমানে ঊর্ধ্বমুখী। তিনি আরও জানান, ছয় মাস আগে অনেক জেলায় জনপ্রিয়তা নিম্নমুখী হতে শুরু করে। তবে বর্তমান জরিপে জানা গেছে এর উন্নতি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী এ সময় ভোটারদের আকৃষ্ট করতে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডগুলো বেশি করে প্রচারের নির্দেশনা দেন।

বরিশাল-৬ (বাকেরগঞ্জ) আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়নে জনমত জরীপে সকলকে ছাপিয়ে এগিয়ে ইঞ্জি: মঞ্জুরুল হক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য আসনভিত্তিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটি করবে আওয়ামী লীগ। এই কমিটিতে সংশ্লিষ্ট জেলা, উপজেলা কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকেরা থাকবেন। তাঁরা কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী প্রার্থীর পক্ষে বিজয় নিশ্চিত করতে কাজ করবেন।

গতকাল শনিবার রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা জাতীয় কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। কমিটির চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এটা ছিল একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য গঠিত দলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রথম বৈঠক। এর মধ্য দিয়ে আগামী নির্বাচনের কৌশল ঠিক করার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।

বৈঠকে সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর বিশ্বাস, আগামী নির্বাচনেও বাংলাদেশের জনগণ নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করবে এবং উন্নয়নের ধারাটা অব্যাহত রাখবে। তিনি বলেন, ছয় মাস পরপর সমীক্ষা করা হচ্ছে। আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। প্রার্থীদের ব্যাপারে খোঁজখবর রাখা হচ্ছে। দু-একজন বাদে অধিকাংশ সাংসদের অবস্থা ভালো।

বৈঠক-সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, গতকালের বৈঠকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যদের সদস্যসচিব করে কয়েকটি কোর কমিটি গঠনের প্রস্তাব করা হয়। তাঁরা নির্বাচন-সংশ্লিষ্ট সব কর্মকর্তা ও দলের তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে কাজ করবেন। ভোটারদের আকৃষ্ট করতে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডগুলো বেশি করে প্রচার করতে বৈঠকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা বলেছেন, মনোনয়নের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় নেতারা অগ্রাধিকার পাবেন। ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা কোনো নেতা মনোনয়ন পাবেন না।

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের ‘জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে’ যুক্ত হয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

এর মধ্যে দিয়ে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রক্রিয়া সঙ্গে যুক্ত হলেন।

শুক্রবার (২৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ এবং আওয়ামী লীগের সংসদীয় দল (পার্লামেন্টারি পার্টি) এর যৌথসভায় জয়কে এ দায়িত্ব দেওয়া হয় বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

জয়কে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনার মূল কমিটিতে (কোর কমিটি) সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগ ও সরকারের পাশে থেকে কাজ করলেও এই প্রথম তিনি দলীয় ফোরামে আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্ত হলেন।

সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের ৩৩ সদস্যের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনার মূল কমিটিতে (কোর কমিটি) চেয়ারম্যান হিসেবে আছেন দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা। কমিটি’র কো-চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এইচ টি ইমাম এবং সদস্য সচিব আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মূল কমিটির অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাজেদা চৌধুরী, উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, ড. মশিউর রহমান, রাশিদুল আলম, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফর উল্ল্যাহ, মোহাম্মদ নাসিম, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, ড. আব্দুর রাজ্জাক, কর্নেল (অব.) ফারুক খান, সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন, কোষাধক্ষ্য এইচ এন আশিকুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, ডা. দিপুমনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সাধারণ সম্পাদক নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, শেখ হাসিনার চাচাতো ভাই শেখ সালাহ উদ্দিন জুয়েল, দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য আখতারুজ্জামান, দীপংকর তালুকদার, অ্যাডভোকেট এবিএম রিয়াজুল কবির কাওছার এবং উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *